মেয়েটির কাজের স্পিড দেখলে আপনার চোখ কপালে উঠে যাবে! ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখুন

মেয়েটির কাজের স্পিড দেখলে আপনার চোখ কপালে উঠে যাবে! ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখুন

সাধারণভাবে কোন কিছু করাকে কাজ বলে। যেমনঃ পড়াশোনা করা, সাইকেল চালানো ইত্যাদি।

কিন্তু পদার্থবিজ্ঞানে কাজের সুনির্দিষ্ট একটি সংজ্ঞা রয়েছে। কোন বস্তুর উপর বল প্রয়োগ করলে যদি বস্তুর সরণ ঘটে কেবলমাত্র তখনই কাজ করা হয়। কিন্তু বল প্র‍য়োগ করা সত্ত্বেও যদি বস্তুর সরণ না ঘটে তাহলে কোন কাজ করা হবে না।

দৈনন্দিন জীবনে কাজ সম্পর্কে আমাদের যে ধারণা, তার সাথে পদার্থবিজ্ঞানগত ধারণার বেশ পার্থক্য রয়েছে। যেমন কোনো​ বস্তুকে দুহাতে আঁকড়ে উপরে তুলে আবার যেখান থেকে তোলা হলো সেখানে নামিয়ে রাখলে পদার্থবিজ্ঞান এর দৃষ্টিকোণ থেকে কাজের পরিমাণ হবে শূন্য,

অথচ নিত্যদিনকার ধারণামতে আমরা এটাকেও হয়তো কাজ বলব, কারণ এর মাধ্যমে উত্তোলনকারী ক্লান্ত এবং ঘর্মাক্ত হয়ে পড়তে পারেন। পদার্থবিজ্ঞানের ভাষায়, বল এবং বলের দিকে সরণ-এর উপাংশ-এর গুণফল হলো কাজ।

এখন কার সময়ে মেয়েরাও কোনো দিক দিয়ে কম না। আজ মেয়েরাও অনেক দূরে কাজে এগিয়ে গিয়েছে।ভিডিওতে দেখা আচ্ছে একটি মেয়ের কাজের স্পিড দেখলে আপনার চোখ কপালে উঠে যাবে! ভিডিওটি শেষ পর্যন্ত দেখুন

ভিডিওটি দেখতে ক্লিক করুন
https://www.youtube.com/watch?v=wvv5-KAbVPk

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!