বিচ্ছেদের পর গর্ভপাত নিয়ে মুখ খুললেন সামান্থা

বিচ্ছেদের পর গর্ভপাত নিয়ে মুখ খুললেন সামান্থা

দক্ষিণী চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় জুটি ছিলেন অভিনেত্রী সামান্থা রুথ প্রভু ও নাগা চৈতন্য। কিন্তু বিয়ের চার বছরের মাথায় সংসার ভেঙে যায় এই জুটির। তবে বিচ্ছেদের জন্য অনেকেই এই অভিনেত্রীকে দায়ী করছেন। কেউ বলছেন, অভিনেত্রী হাই মেইন্টেন্যান্স। কেউ বলছেন, তিনি সন্তান ধারণ করতে চাননি।

কেউবা বলছেন, অভিনেত্রী নাকি পরকীয়ায় জড়িয়েছিলেন। কেউ আবার সরাসরি দাবি করে বসেছেন যে, অভিনেত্রী নাকি একাধিকবার গর্ভপাত করিয়েছিলেন! আর সেই কারণেই তাকে ডিভোর্স দেন দক্ষিণী সুপারস্টার নাগা চৈতন্য। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার জন্য দায়ী করা হচ্ছিল সামান্থাকেই।

অবশেষে বিষয়টি নিয়ে নীরবতা ভাঙলেন অভিনেত্রী। কড়া জবাবও দিলেন নিন্দুকদের। ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে তিনি লিখেছেন, আমার ব্যক্তিগত সমস্যা নিয়ে আপনাদের চিন্তা দেখে আমি আপ্লুত।

এই পরিস্থিতিতে আমার প্রতি যারা সহানুভূতি দেখিয়েছেন, তাদের সকলকে ধন্যবাদ। আমাকে নিয়ে চিন্তা করার জন্য ধন্যবাদ। ভুয়া খবর এবং গুজব ফুৎকারে উড়িয়ে দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ।

তিনি লিখেছেন, আমি জানি অনেক মিথ্যে গুজব রটানো হচ্ছে। বলা হচ্ছে, আমি অন্য সম্পর্কে জড়িয়েছি। বলা হচ্ছে, আমি কোনোদিন মা হতে চাইনি। আমি সুযোগসন্ধানী। এখন তো শুনছি আমি গর্ভপাতও করিয়েছি। তাও একাধিকবার।

বিবাহ-বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া সত্যিই খুব যন্ত্রণা দেয়। আমাকে এই সময়টা একটু একা থাকতে দিন। নিজেকে একটু গুছিয়ে নিতে দিন। অভিনেত্রী আরও লিখেছেন, এভাবে আঘাত করে আমার মনোবল ভেঙে দেওয়া যাবে না। এই আক্রমণ বা অন্য কিছুই আমাকে ভাঙতে পারবে না। সে ব্যাপারে নিশ্চিত থাকতে পারেন।

উল্লেখ্য, তাদের প্রেমকাহিনী অনেকটা রূপকথার গল্পের মতো ছিল। প্রেমের সঙ্গে কাটানো প্রতিটি মুহূর্তকে রেশম সুতোয় বুনে এক বিশেষ শাড়ি তৈরি করেছিলেন সামান্থা। সেই শাড়ি গায়ে দিয়েই বিয়ের পিঁড়িতে বসেছিলেন। তবে সিনেমার মতো প্রেমের গল্পের রঙ ফিকে হয়েছে বিয়ের চার বছরের মাথায়।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!