বাবার মৃত্যুর খবর শুনে মেয়ের মৃত্যু, পাশাপাশি দাফন

বাবার মৃত্যুর খবর শুনে মেয়ের মৃত্যু, পাশাপাশি দাফন

নীলফামারীর ডোমারে মোবাইল ফোনে বাবার মৃত্যুর খবর শুনে হার্ট অ্যাটাকে মেয়েরও মৃত্যু হয়েছে। শনিবার (৯ অক্টোবর) ভোর পাঁচ টার দিকে এ মর্মান্তিক ঘটনাটি ঘটে। একসাথে বাবা ও মেয়ের মৃত্যুর ঘটনায় এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

তারা হলেন, উপজেলার হরিণচড়া ইউনিয়নের জোড়পাখুড়ী গ্রামের মজিবুল হক (৭৫) এবং তার মেয়ে নীলফামারী সদর উপজেলার লক্ষীচাপ ইউনিয়নের আজগার আলীর স্ত্রী রাবেয়া খাতুন (৪০)।

মৃত মজিবুল হকের ছেলে হারুন-অর রশীদ জানান, দীর্ঘদিন হতে আমার বাবা বাধ্যক্যজনিত রোগে ভুগছিলেন। শনিবার ভোরে বাবার মৃত্যু হলে কিছুক্ষন পর মোবাইল ফোনে আমার বড় বোন রাবেয়া খাতুনকে (৪০) জানাই।

বাবার মৃত্যুর খবর শুনে কিছুক্ষণের মধ্যে আমার বোন রাবেয়া খাতুনের বুকে ব্যাথা শুরু হয়। পরিবারের সদস্যরা কোন কিছু বুঝে ওঠার আগেই তার মৃত্যু হয়।

হারুন অর রশিদ আরো বলেন, আমার বোনের শশুর বাড়ির লোকদের সাথে কথা বলে দুই জনের লাশ একসাথে দাফন করার সিন্ধান্ত হয়। বাদ যোহর জোড়পাখুড়ী জামে মজজিদ মাঠে জানাজা শেষে পারিবারিক কবরস্থানে দাফন কাজ সম্পূর্ণ করেছি।

এ বিষয়ে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান তোফায়েল আহমেদ জানান, এক সাথে বাবা ও মেয়ের মৃত্যুর খবরটি শুনে হাজার হাজার মানুষ দেখতে আসে। এতে গোটা এলাকায় শোকের ছায়া নেমে আসে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!