প্রবাসীর সঙ্গে ইমোতে প্রেম, দেশে এসে প্রেমিকাকে ধর্ষণ

প্রবাসীর সঙ্গে ইমোতে প্রেম, দেশে এসে প্রেমিকাকে ধর্ষণ

ইমো নাম্বারে প্রবাসী সঙ্গে প্রেমের সম্পর্কের পর ধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক নারী। এ ঘটনায় ওই প্রবাসীকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। বৃহস্পতিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত ব্যক্তি টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর প্রবাসী ছেলে আব্দুর রহমান।

মামলার বিবরণ থেকে জানা যায়, প্রায় ৭ বছর আগে ভুক্তভোগী নারীর তার এলাকায় বিয়ে হয়। সে ঘরে ছেলে সন্তানের জন্ম হয়। কিন্তু স্বামীর সঙ্গে বনিবনা না হওয়ায় তাকে তালাক দেন তিনি।

পরে মোবাইল ফোনের ইমো নাম্বারে পরিচয় হয় টাঙ্গাইলের গোপালপুর উপজেলার মাহমুদপুর গ্রামের ইয়াসিন আলীর প্রবাসী ছেলে আব্দুর রহমানের সঙ্গে। এ সময় গড়ে ওঠে প্রেমের সম্পর্ক।

এদিকে এক মাস আগে দেশে আসেন রহমান। এসে ইয়াসমিনকে দেখা করতে বলেন। দেখা করতে রাজি না হলে তাকে বিয়ে করবেন না বলে জানান তিনি। পরে শর্তে রাজি হয়ে

গত ২৫ সেপ্টেম্বর মধুপুর উপজেলায় তারা দেখা করেন। সেখান থেকে আব্দুর রহমান তাকে ঘাটাইল উপজেলার দেওলাবাড়ি ইউনিয়নের উত্তর খীলগাতি গ্রামে তুলা মিয়ার বাড়ি নিয়ে যান।

এ সময় তাকে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে ধর্ষণ করেন। পরে ভুক্তভোগী নারী তাকে বিয়ের চাপ দিলে সে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানান। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে আব্দুর রহমানকে আসামি করে ঘাটাইল থানায় মামলা দায়ের করলে পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে।

এ বিষয়ে ঘাটাইল থানার ওসি আজহারুল ইসলাম সরকার পিপিএম আরটিভি নিউজকে বলেন, অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে জেলে পাঠানো হয়েছে। ভুক্তভোগী নারীকে ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!