শেষমেশ সমাধান খুঁজতে টস করে দুই প্রেমিকা থেকে বউ খুঁজে নিলেন যুবক!

শেষমেশ সমাধান খুঁজতে টস করে দুই প্রেমিকা থেকে বউ খুঁজে নিলেন যুবক!

ক্রিকেট-ফুটবলের মতো খেলাগুলোতে টসের বিষয়টি খুবই প্রচলিত। কিন্তু কখনো শুনেছেন, বিয়ের জন্য পাত্রী বাছতে টস করতে হচ্ছে? হ্যাঁ! সম্প্রতি এমন আশ্চর্যজনক ঘটনা ঘটেছে পাশের দেশ ভারতে।

আনন্দবাজার পত্রিকার খবর অনুসারে, ঘটনাস্থল কর্ণাটকের হাসান জেলার সাকলেশপুর গ্রাম। বছরখানেক আগে সাকলেশপুরের এক যুবকের সঙ্গে পাশের গ্রামের এক তরুণীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। সমস্যার শুরু হয় ছয় মাস আগে। প্রেমিক-প্রেমিকার জীবনে আবির্ভাব ঘটে তৃতীয় ব্যক্তির।

ওই যুবক তার প্রেমিকাকে লুকিয়ে অন্য একটি গ্রামের এক তরুণীর সঙ্গে আলাপ করেন। পরে তাদের মধ্যেও ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক গড়ে ওঠে। তারপর থেকে দুজনকেই আলাদা করে সময় দিতেন এবং দুই প্রেমিকার অজান্তেই এই কাজ করতেন সেই যুবক।

কিন্তু সত্য আর কতদিন চাপা থাকে! যুবককে দ্বিতীয় প্রেমিকার সঙ্গে দেখে ফেলেন তার প্রথম প্রেমিকার এক আত্মীয়। এই কথা চারদিকে ছড়িয়ে পড়লে বেশ বিপাকে পড়েন প্রেমিক। তবে তিনি পরিবারকে জানিয়ে দেন, দ্বিতীয় প্রেমিকাকেই বিয়ে করতে চান। কিন্তু প্রথম প্রেমিকাও নাছোড়বান্দা।

অন্যদিকে, দ্বিতীয় প্রেমিকার বাবা-মা ওই যুবকের সঙ্গেই মেয়ের বিয়ে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন। ফলে পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হয়ে ওঠে। দুই তরুণীই ওই যুবককে বিয়ে করতে জেদ ধরে বসেন।

শেষমেশ সমাধান খুঁজতে পঞ্চায়েতের দ্বারস্থ হয় পরিবারগুলো। কিন্তু পঞ্চায়েতপ্রধানও স্থির করতে পারছিলেন না, কী রায় দেওয়া যায়। শেষে ঠিক হয়, টস করেই এর সমাধান বের করা হবে। টসে যিনি জিতবেন, তিনিই ওই যুবককে বিয়ে করবেন।

শেষপর্যন্ত টসে কে জিতেছেন, তা নিয়ে গ্রামবাসীদের কাছ থেকে দুই ধরনের বক্তব্য এসেছে। কেউ বলছেন, প্রথম প্রেমিকা টসে জিতেছেন, কেউ বলছেন দ্বিতীয়। তবে যিনিই জিতুন না কেন, ওই যুবক শেষে স্থির করেন, তিনি প্রথম প্রেমিকাকেই জীবনসঙ্গী বানাবেন। আর হয়েছেও ঠিক তা-ই।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!