জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নদীর পানিতে খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষ

জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নদীর পানিতে খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষ

নদীতে ভাসমান পদ্ধতিতে মাছ চাষের বিষয়টি লাভজনক হওয়ায় নরসিংদীতে জনপ্রিয়তা পাচ্ছে নদীর পানিতে খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষ।
মেঘনার

শাখা ও পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদসহ আশপাশের বিভিন্ন বিলের পানিতে ভাসমান অবস্থায় খাঁচা পদ্ধতিতে মাছ চাষ করছেন চাষিরা। এতে একদিকে উৎপাদিত হচ্ছে বিভিন্ন প্রকারের সু-স্বাদু মাছ, অন্যদিকে সৃস্টি হচ্ছে কর্মসংস্থানের।

জেলা মৎস্য অধিদফতর ও মাছ চাষিদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, নরসিংদী জেলাজুড়ে নদীর পানিতে ভাসমান অবস্থায় খাঁচায় মাছ চাষ করে সফলতা অর্জন করেছেন মৎস্য চাষিরা। নদীর পানিতে লোহার পাইপ, বাঁশ, ড্রাম ও চারদিকে জাল দিয়ে তৈরি করা হয় এই ভাসমান খাঁচা।

পুকুর তৈরি ও ভূমি ব্যবহারের খরচ বাঁচিয়ে নরসিংদীর মেঘনার শাখা নদী ও পুরাতন ব্রহ্মপুত্র নদসহ বিভিন্ন বিলের পানিতে এই পদ্ধতিতে মাছ চাষ করছেন চাষিরা।

নরসিংদী জেলা মৎস্য অধিদফতরের হিসেব অনুযায়ী জেলায় প্রায় ৮ শতাধিক খাঁচায় মাছ চাষ করা হয়। মৎস্য চাষিদের দেয়া তথ্যমতে জেলায় দেড় সহস্রাধিক খাঁচায় মাছ চাষ হচ্ছে। তুলনামূলক খরচ কম ও লাভ বেশি হওয়ায় এই পদ্ধতিতে তেলাপিয়া,

পাবদা, পাঙ্গাস, রুইসহ নানা প্রজাতির মাছ চাষ করা যায়। পুকুরে চাষ করা মাছের চেয়ে স্বাদে ভালো হওয়ায় এই পদ্ধতিতে চাষ করা মাছের ব্যাপক চাহিদা রয়েছে বাজারে। সরাসরি খাঁচা থেকেই এসব মাছ কিনে নিয়ে যাচ্ছেন পাইকারী ব্যবসায়ীরা। অল্পদিনেই লাভজনক হওয়ায় এই পদ্ধতিতে মাছ চাষে আগ্রহী হয়ে উঠেছেন চাষিরাও।

এ পদ্ধতিতে প্রবাহমান পানিতে মাছ চাষের ফলে জলাশয়ের সঠিক ব্যবহার সুনিশ্চিত হচ্ছে। তবে শিল্পকারখানার বর্জ্যে মেঘনা নদীর পানি দুষণ, মাছের খাবারের মূল্য বৃদ্ধি ও পূঁজির অভাবে এ পদ্ধতিতে মাছ চাষের কিছুটা সমস্যা রয়েছে বলে জানান চাষিরা।

মেঘনা নদীতে খাচাঁয় মৎস্য চাষি কামাল হোসেন জানান, পুকুরের তুলনায় খাঁচায় মাছ চাষ অনেকটা লাভজনক। মাছের স্বাদ থাকা ও দুর্গন্ধহীন হওয়ার কারণে বাজারে এসব মাছের চাহিদাও ব্যাপক। সরাসরি খাঁচা থেকেই মাছ বিক্রি করা যায়।

একই এলাকার অপর চাষি আরজু মিয়া জানান, ২০ লাখ টাকা ব্যয় করে খাঁচায় তেলাপিয়া মাছ চাষ করছি। প্রতি বছর ৬ থেকে ৮ লাখ টাকা লাভ করতে পারছি। শিল্পবর্জ্যে মাছ চাষে ব্যাঘাত ঘটছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

জেলা মৎস্য কর্মকর্তা মো. বেলাল হোসেন জানান, ভাসমান অবস্থায় খাঁচায় মাছ চাষ বৃদ্ধি করে মাছের চাহিদা পূরণের জন্য মৎস্য চাষিদের প্রয়োজনীয় পরামর্শ দেয়া হচ্ছে। ঋণ সহায়তা দেয়া গেলে নদ-নদীর প্রবাহমান পানি কাজে লাগিয়ে এ পদ্ধতিতে মাছ চাষে বিপ্লব ঘটানো সম্ভব।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!