নদী ভাঙনে হঠাৎ বিলীন হয় গেল দোতলা বাড়ি,সাথে নিয়ে গেল যুবককেও, দেখুন ভিডিওসহ!

নদী ভাঙনে হঠাৎ বিলীন হয় গেল দোতলা বাড়ি,সাথে নিয়ে গেল যুবককেও, দেখুন ভিডিওসহ!

বাংলাদেশে পদ্মা নদীর তীব্র ভাঙ্গনে তীরবর্তী নড়িয়া উপজেলায় শত শত ঘরবাড়ি ও বড় বড় স্থাপনা নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে।

এর ফলে চার হাজারেরও বেশি পরিবার সহায় সম্বলহীন হয়ে পড়েছে।

সেখানে মুহূর্তে তিন তলা একটি ভবন ভেঙে পদ্মায় বিলীন হওয়ার ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে।

শরীয়তপুর জেলায় প্রায় আড়াই লাখ মানুষের এই উপজেলাটিই এখন নদী ভাঙ্গনের কারণে সবচেয়ে বেশি হুমকির মুখে পড়েছে বলে স্থানীয় লোকজন বলছেন।

গত আড়াই মাস ধরে চলা নদী ভাঙ্গন পুরো উপজেলার মানুষের মধ্যে আতংক সৃষ্টি করেছে।

তারা অভিযোগ করেছেন,বছরের পর বছর নদী শাসন বা খনন না করায় এবার পদ্মা নদীর ভাঙ্গন অন্য যেকোনো সময়ের তুলনায় ভয়াবহ রূপ নিয়েছে।

অনেক দেরিতে নদী শাসনের প্রকল্প অনুমোদনের পর এর কাজ শুরু করার জন্য সরকারের সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এখন নদীর স্রোত কমা বা ভাঙ্গন বন্ধ হওয়ার অপেক্ষায় রয়েছে।

কয়েকদিন আগে সবার চোখের সামনে তিন তলা নীল একটি ভবন পদ্মা নদীতে বিলীন হয়ে যায়। এই ঘটনার একটি ভিডিও ফেসবুকে ব্যাপক আলোড়ন সৃষ্টি করেছে।

ঘটনাটি ঘটেছে শরীয়তপুরের নড়িয়া উপজেলার কেদারপুর ইউনিয়নে।

ভবনটিতে ব্যক্তি মালিকানাধীন একটি ক্লিনিক ছিল। ভবনটির মালিকের ছেলে সোহেল হোসেন দেওয়ান বিবিসি বাংলাকে বলেছেন, দুই মাস আগে তাদের বসবাসের দোতলা বাড়ি প্রথমে নদীতে বিলীন হয়ে যায়।

তখন তারা নদী থেকে তিনশো মিটার দূরে তাদেরই একটি তিনতলা ভবনে উঠেছিলেন। সেটিও কয়েকদিন আগে নদীতে চলে যায়।

ভিডিওটি দেখতে

ক্লিক করুন

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!