নন্দীগ্রামে গিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নন্দীগ্রামে গিয়ে পায়ে গুরুতর চোট পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

নন্দীগ্রামে গিয়ে বিরাট চোট পেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিরুলিয়ার মন্দির থেকে বেরোনর সময় গুরুতর চোট পান তিনি। ব্যথায় রীতিমতো কাতরাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। সূত্রের খবর ,

তিনি গাড়ির দরজায় বসে থাকার সময় জোরে দরজা ঠেলে বন্ধ করে দেওয়া হয়। ঘটনায় ষড়যন্ত্রের অভিযোগ করেছেন তিনি ।

রানিচকে একটি জায়গায় হরিনাম সংকীর্তন চলছিল। তিনি সেখানে গিয়েছিলেন। সেখান থেকে ফেরার পথে এই ঘটনা ঘটেছে বলে জানা যাচ্ছে। অভিযোগ , ৪-৫ জন তাঁকে ধাক্কা মারে। প্রচণ্ড ভিড় ছিল সেই সময়।

তাঁকে কার্যত পাঁজাকোলা করে পিছনের আসনে বসান তাঁর নিরাপত্তারক্ষীরা। জেড প্লাস নিরাপত্তা পান মুখ্যমন্ত্রী। তাও কী করে এই ঘটনা ঘটল ? এদিনের ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তা বড়সড় প্রশ্নচিহ্ন উঠল।

স্থানীয় সূত্রে খবর , মুখ্যমন্ত্রীর পা রীতিমতো ফুলে গিয়েছে। আপাতত ক্রেপ ব্যান্ডেজ বাঁধা রয়েছে তাঁর পায়ে। ব্যথা পাওয়ার পর যন্ত্রণায় তাঁর জ্বর চলে এসেছে । এমনই দাবি করেন মমতা। একই সঙ্গে নন্দীগ্রামের সমস্ত কর্মসূচি ফেলে তিনি কলকাতা ফিরে আসবেন বলে জানা গেছে ।

কেউ বা কারা ইচ্ছাকৃত এই ঘটনা ঘটিয়েছে। তাঁর বুকে ব্যথা হচ্ছে। এমনটাই জানান মমতা । তবে দৃশ্যমানতা নেমে যাওয়ার কারণে কপ্টারে কলকাতা ফিরতে পারছেন না মুখ্যমন্ত্রী। কনভয় করে কলকাতা ফিরবেন তিনি ।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!