তিনি এমন জেদি বাড়ির মালিক কোনভাবেই নিজের বাড়ি ছাড়তে চায়নি, সরকারকে হার মেনেই করতে হয়েছে রাস্তা।

তিনি এমন জেদি বাড়ির মালিক কোনভাবেই নিজের বাড়ি ছাড়তে চায়নি, সরকারকে হার মেনেই করতে হয়েছে রাস্তা।

নতুন এক জরিপে দাবি করা হচ্ছে ইরাকের মানুষ অচেনা মানুষের সঙ্গে সবচেয়ে দয়ালু আচরণ করে, আর মিয়ানমারের মানুষ সবচেয়ে বেশি দানশীল।

সিএএফ ওয়ার্ল্ড গিভিং ইনডেক্স এই জরিপে বলা হয়, গত মাসে ইরাকে প্রতি দশ জন মানুষের আটজন অন্তত একজন অপরিচিত লোককে সাহায্য করেছেন।

লিবিয়ার মানুষও অচেনা মানুষকে সাহায্য করার ক্ষেত্রে একই রকম উদারতার পরিচয় দিয়েছেন।

আর গত মাসে মিয়ানমারে ৯১ শতাংশ মানুষ দান করেছেন জনকল্যাণে।

দানশীলতার দিক থেকে দ্বিতীয় স্থানে আছেন যুক্তরাষ্ট্রের মানুষ। গত মাসে ৬৩ শতাংশ মার্কিন নাগরিক মানুষকে সাহায্য করতে দান করেন।

মিয়ানমার অবশ্য এ নিয়ে পরপর তিন বার দানশীলতার দিক থেকে প্রথম স্থানে আছে।

সেখানে থেরাভেদা বৌদ্ধ ধর্মের অনুসারী মানুষ বৌদ্ধ ভিক্ষুদের সাহায্য করতে যে দান করে, সেটাই এর কারণ বলে মনে করা হয়।

দানশীলতার দিক থেকে ইউরোপে এক নম্বরে আছে ব্রিটেন, মধ্যপ্রাচ্যে সংযুক্ত আরব আমিরাত, আফ্রিকায় কেনিয়া এবং লাতিন আমেরিকায় গুয়াতেমালা।

চীনকে বিশ্বের সবচেয়ে কৃপন বলে চিহ্ণিত করা হয়েছে এই রিপোর্টে।

তবে প্রতিটি দেশে মাত্র এক হাজার লোকের ওপর জরিপের ভিত্তিতে এই ফল পাওয়া গেছে। তাই জরিপের ফল নিয়ে প্রশ্ন উঠতে পারে, স্বীকার করছে জরিপ পরিচালনাকারী প্রতিষ্ঠান।

বিবিসির সংবাদদাতারা বলছেন, ইরাক এবং লিবিয়ার মানুষকে যে অপরিচিত মানুষের প্রতি সবচেয়ে দয়ালু বলে বর্ণনা করা হচ্ছে, এতে তারা অবাক নন।

কারণ এই দুটি দেশেই একদম অপরিচিত মানুষকে সাদর আতিথেয়তার দেয়ার ঐতিহ্য আছে।

ভিডিওটি দেখতে
https://www.youtube.com/watch?v=66Z0PthI0fE
ক্লিক করুন…

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!