বিয়েতে খেতে চাননি কনে, চুলের মুঠি ধরে একি করলেন বর!

বিয়েতে খেতে চাননি কনে, চুলের মুঠি ধরে একি করলেন বর!

বিবাহ’ জীবনচক্রের গু’রুত্বপূর্ণ একটি ধাপ। একজন নারী ও একজন পুরুষের যৌথ জীবনের স্বতঃস্ফূর্ত অ’ঙ্গীকার এটি। যে চুক্তির মাধ্যমে বিপরীত লি’ঙ্গের দুজন মানুষের মধ্যে সেতুবন্ধন রচিত হয়, তা-ই বিয়ে।

এর দ্বারা মানুষ তার মনের কামনাকে বিধিব’দ্ধভাবে পূরণের স্বীকৃতি পায়। নতুন খবর হচ্ছে, বিয়েতে মিষ্টি খেতে চাননি কনে। তাই চুলের মুঠি ধরে হবু স্ত্রী’র মুখে মিষ্টি গু’ঁজে দিল বর।

মিষ্টি খাওয়ানোর সেই ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়েছে। বরের সেই হিং’সাত্মক আচরণে রীতিমতো ক্ষু’ব্ধ হয়েছেন নেটিজেনরা। ইনস্টগ্রামে পোস্ট করা সেই ভিডিওতে দেখা যায়,

বিয়ে করতে আসার পর বরকে মিষ্টি খাইয়ে দিচ্ছেন কনে। তাকে দেখেই বোঝা যাচ্ছে যে রীতিমতো ল’জ্জা পাচ্ছেন। মুখ তুলেও সেভাবে চাইছিলেন না। তারইমধ্যে কনেকে মিষ্টি খাওয়াতে যায় বর।

কিন্তু মুখ ঘুরিয়ে নেন কনে। তাতেই প্রচণ্ড রাগ ওঠে বরের । চুলের মুঠি ধরে কনের মুখে মিষ্টি গু’ঁজে দেয়। স্পষ্টতই বোঝা যাচ্ছিল যে কনে মুখ খুলতে চাইছেন না। হবু স্ত্রীর মুখে মিষ্টি যাওয়ার পর তবেই চুলের মুঠি ছাড়ে বর।আশ্চর্যজনকভাবে বরের পাশে এক মহিলা দাঁড়িয়েছিলেন।

তিনি কোনো শব্দও করেননি। অন্য কেউও সেখানে এগিয়েও আসেননি। তার পর এমন হাবভাব করে বর নড়েচড়ে দাঁড়ায়, দেখে মনে হচ্ছিল যেন যু’দ্ধ জয় করেছে।

‘অফিসিয়াল-নিরানঞ্জনএম৮৭’ নামে একটি ইনস্টগ্রামে অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা সেই ভিডিও রীতিমতো ভাইরাল হয়েছে। তিনদিনে প্রচুর মানুষ সেই ভিডিওতে কমেন্টও করেছে। বরের সেই হিং’সাত্মক আচরণের তীব্র সমালোচনা করেছেন নেটিজেনরা। এক নেটিজেন লিখেছেন, ‘বিয়ের দিন এভাবে কনের স’ঙ্গে ব্যবহার করছেন বর – ল’জ্জাজ’নক!

ভগবান জানেন, কীভাবে বাকি জীবন তার স’ঙ্গে ব্যবহার করা হবে। এরকম ব্যবহারের সময় কেউ আট’কালও না।’ অ’পর আরেক নেটিজেন লিখেছেন, ‘এটা মোটেও মজাদার কিছু নয়।

এটা হে’নস্থা। এরপর কী ‘হতে চলেছে, তা এটা থেকেই ই’ঙ্গিত মিলছে। আমি বিশ্বা’স করতে পারছি না যে পরিবার এরকম ‘হতে দিল। এগু’লি মজার বা আনন্দের নয়, এগু’লি দুঃখজনক।’

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!