আপত্তিকর ভিডিও, ৪ বছর ধরে ভাবিকে করছে নিয়মিত ধ’র্ষ’ণ!

আপত্তিকর ভিডিও, ৪ বছর ধরে ভাবিকে করছে নিয়মিত ধ’র্ষ’ণ!

চার বছর ধরে এক গৃহবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে মিঠুন চন্দ্র মন্ডল (৩৮) নামেজানা গেছে, গৃহবধূর নগ্ন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি ও স্বাক্ষরিত ফাঁকা স্ট্যাম্প জিম্মি করে ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে আসছিল মিঠুন।

বৃহস্পতিবার সকাল ১০টার দিকে স্ট্যাম্প ও ভিডিও ফেরত চাইতে গিয়ে মারধরের শিকার হন ওই গৃহবধূ। পরে তাকে উদ্ধার করে মান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়। ভুক্তভোগী নারী জানান, অভিযুক্ত মিঠুন সম্পর্কে প্রতিবেশী দেবর। নিকটবর্তী প্রতিবেশী হওয়ায় উভয় পরিবারে নিয়মিত যাতায়াত ছিল তাদের।

সম্পর্কের সূত্র ধরে মিঠুন তাকে মাঝে মধ্যেই কু-প্রস্তাব দিত। একপর্যায়ে বাড়িতে কেউ না থাকার সুযোগে মিঠুন কৌশলে তাকে ধর্ষণ ও এর ভিডিও চিত্র মোবাইলে ধারণ করে। তিনি আরও জানান, প্রায় চার বছর আগে প্রতিবেশী অন্য নারীদের সঙ্গে তিনিও ডেল্টা লাইফ ইনস্যুরেন্স নামের একটি বীমা কোম্পানির গ্রাহক হন।

বীমার কাগজপত্র তৈরির কথা বলে এ সময় মিঠুন দুইটি ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর নেন। পরে ধারণকৃত ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ও ফাঁকা স্ট্যাম্প জিম্মি করে ইচ্ছার

বিরুদ্ধে বারবার ধর্ষণ করতে থাকেন প্রতিবেশী দেবর। লোকলজ্জায় বিষয়গুলো স্বামীসহ পরিবারের লোকজনের নিকট গোপন রাখা হয়।

ভুক্তভোগীর স্বামী জানান, দীর্ঘদিন ধরে স্ত্রী অস্বাভাবিক আচরণ করছিল। জানতে চাইলেও বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে এড়িয়ে যেতেন।

সম্প্রতি বিষয়গুলো প্রকাশ করলে ফাঁকা স্ট্যাম্প ও ভিডিওগুলো উদ্ধারের পরামর্শ দেওয়া হয়। বৃহস্পতিবার সকালে সেগুলো ফেরত নেওয়ার জন্য গেলে মারধর করে মিঠুন।

মান্দা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহিনুর রহমান বলেন, বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর অভিযান চালিয়ে মিঠুনকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। আটক মিঠুন উপজেলার ভারশোঁ ইউনিয়নের বলাক্ষেত্র গ্রামের মতিলাল মন্ডলের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১০ জুন) বিকেলে অভিযান চালিয়ে নিজ বাড়ি থেকে আটক করা হয় তাকে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!