হেলিকপ্টার চড়ে ঘটা করে বিয়ের পর বিপাকে বর

হেলিকপ্টার চড়ে ঘটা করে বিয়ের পর বিপাকে বর

হেলিকপ্টার চড়ে ঘটা করে বিয়ের পর বিপাকে পরেছেন বর। করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে লোক সমাগম করে বিয়ের আয়োজন ও হেলিকপ্টারে বউ আনার ঘটনায় ৫০ হাজার টাকা জরিমানা গুনতে হয়েছে বর পক্ষকে।

রবিবার (২৮ জুন) দুপুর ১২টার দিকে শরীয়তপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মনদীপ ঘরাই এই অর্থদণ্ড করেন।

জানা যায়, সদর উপজেলার আংগারিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ ভাসানচর নতুন হাট গ্রামের জাহাঙ্গীর সরদারের ছেলে সাগর আহমেদ সরদার (২৩) সোমবার (২৮ জুন) দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়া নবিনগর উপজেলার ইব্রাহিমপুর এলাকার

হাজী আলী করিম খন্দকারের মেয়ে মেয়ে কাউনান খন্দকার বন্যাকে (২৩) বিয়ে করে হেলিকপ্টার শরীয়তপুরের দক্ষিণ ভাসানচর নতুন হাট নিয়ে আসেন।

হেলিকপ্টারটি ওই গ্রামের একটি ইটের সড়কে অবরণ করে। পরে পালকিতে করে কনেকে বর সাগর আহমেদ সরদারের বাড়িতে নিয়ে যান। এসময় অন্তত সহস্রাধিক মানুষ জড়ো হয়। তবে তাদের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানার কোনও বালাই ছিল না।

উপস্থিত অধিকাংশের মুখে ছিল না মাস্ক। করোনা সংক্রমণের এসময় এ ধরনের আয়োজনের খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট সাগর আহমেদ সরদার বাড়িতে পৌঁছান। পরে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করার অপরাধে আয়োজক সাগর আহমেদ সরদারকে ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড করেন।

এ বিষয়ে ইউএনও মনদীপ ঘরাই বলেন, ‘মহামারি করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি না মেনে হেলিকপ্টারে করে বউ এনে এলাকায় লোক সমাগম করে স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করেছেন সাগর, যা করোনা পরিস্থিতিতে দণ্ডনীয় অপরাধ। তাই ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। কেউ যদি স্বাস্থ্যবিধি লঙ্ঘন করে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।’

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!