আবর্জনা স্তূপ থেকে কুড়িয়ে পাওয়া মেয়েটি তার সবজি বিক্রেতা বাবাকে এত বড় প্রতিদান দিল!

আবর্জনা স্তূপ থেকে কুড়িয়ে পাওয়া মেয়েটি তার সবজি বিক্রেতা বাবাকে এত বড় প্রতিদান দিল!

আমরা আমাদের দৈনন্দিন জীবনে চলার পথে কখনো উপরে উঠি কখনো আবার নিচে নেমে যায় । ওঠাপড়ার মধ্য দিয়েই আমাদের জীবন অতিবাহিত হয় ।

এরই মাঝে আমাদের সমাজে এমন বেশ কিছু ঘটনা আমরা দেখে থাকি সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে যা আমাদের এই জঞ্জাল যুক্ত সমাজে ফের একবার বাঁচিয়ে তুলতে বিশ্বাস জাগিয়ে তোলে । এই ঘটনা তার প্রমান।

আসামের এক সবজি বিক্রেতা নাম নিখিল । প্রতিদিন কোনরকম ভাবে সবজি বিক্রি করে তার সং-সার চলে । জোট এ দু-মুঠো ভাত । কিন্তু সেদিনের ঘটনার ছিল একটু আলাদা ।

তিনি সবজি বিক্রি করতে রাস্তায় যান এবং হঠাৎই আব-র্জনার স্তুপ থেকে একটি শব্দ তিনি শুনতে পান । অনেকক্ষণ ধরে ধরে শব্দ শুনতে পাওয়ার পর তার মনে কৌতুহল হয়।

কৌতূহলে বসে তিনি আব-র্জনার স্তূ-পে যান এবং গিয়ে যেটি দেখেন তা রীতি-মতো অবাক করে তুলেছিল । একটি বাচ্চা মেয়ে সেখানে কাঁ-দছে এবং পড়ে রয়েছে ।অর্থাৎ জন্ম নেবার পর মা-বাবা সেই বাচ্চা নিতে অস্বীকার করেছে । যার ফলে আবর্জনার স্তূ-পে তার জায়গা হয়েছে । কিন্তু নিখিল ছিল সহৃদয় ব্যক্তি । তাই তাকে তুলে নিয়ে তিনি বাড়িতে যান।

নিখিল যেহেতু অবিবাহিত ছিল তাই সে বাচ্চা বাড়িতে রাখলে তার কোন অসুবিধা হয়নি । নাম রেখেছিল আদরের মিথিলা । অবশেষে অনেক রকম জীবনে ওঠাপড়া মধ্য দিয়ে তিনি তার মিথিলাকে বড় করেন । এবং কষ্টের মধ্য দিয়ে তাদের জীবন যায় । কিন্তু সেই মিথিলা যোগ্য উপহার দিয়েছে তার বাবাকে । এই মুহূর্তে তিনি আ-ইপিএস অফিসার । এটাকে হয়তো ঘু-রে দাঁড়ানো বলে এটাকে হয়তো বলে সমাজের প্রতি প্রতি-শোধ নেওয়া ।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!