যৌনতার জন্য পৃথিবী থেকে নিয়মিত মানুষ অপহরণ করে এলিয়েনরা?

যৌনতার জন্য পৃথিবী থেকে নিয়মিত মানুষ অপহরণ করে এলিয়েনরা?

এলিয়েন, তুমি কোথা হইতে আসিয়াছ? বিশ্বব্রহ্মাণ্ডের রহস্যের জটা থেকেই হয়তো। না হলে, এলিয়েন নিয়ে কম চর্চা তো মানুষ করেনি।

তার সাহিত্যে, সিনেমায় এলিয়েনের ছড়াছড়ি। ‘বঙ্কুবাবুর বন্ধু’ থেকে ‘কোই মিল গ্যয়া’য় তার নানা প্রমাণ ছড়িয়ে। কিন্তু একবিন্দু রহস্যেরও কি কিনারা হয়েছে?

এবার এলিয়েনদের কেন্দ্র করে এক চমকপ্রদ তথ্য সামনে এল। রহস্য বাড়িয়ে তা সামনে আনলেন মার্কিন লেখক জেরোমে ক্লার্ক। তিনি তাঁর বইতে বলে দিয়েছেন, এলিয়েনেরা নিজেদের যৌনচাহিদা মেটাতে নীল গ্রহ থেকে একাধিকবার অপহরণ করেছে মানুষ!

গল্প? কল্পনা? না, জেরোমে তো পুরোদস্তুর প্রমাণও হাজির করেছেন। একটি ঘটনার বর্ণনা এরকম: অস্ট্রেলিয়ার এক নিউজ কোম্পানির কর্ণধার পিটার। এক রাতে আচমকাই ঘুম ভেঙে যায় পিটারের! চোখ খুলে দেখেন খাটের পাশে দু’জন বিদেশিনি মহিলা।

দুজনেই নগ্ন! দু’জনের শরীরী বিভঙ্গে তীব্র যৌন আবেদন! পিটারও সাড়া দিলেন সেই ডাকে। তারপর? চরম মুহুর্তের আগেই দু’জন অদৃশ্য হয়ে যায়। তবে প্রমাণ হিসেবে পিটারের কাছে রয়ে যায় ‘এলিয়েনকন্যা’র মাথার চুল।

আনআইডেন্টিফায়েড ফ্লাইং অবজেক্ট বা UFO এবং প্যারানরমাল অ্যাক্টিভিটি নিয়ে গবেষণা করছেন এই জেরোমে ক্লার্ক। সম্প্রতি তাঁর লেখা ‘ইউএফওস ইন দ্য লেট টোয়েন্টিথ সেঞ্চুরি’ বইটি প্রকাশ পায়। সেখান থেকেই জানা গিয়েছে এই তথ্য।

জেরোমে হিসাব দিয়েছেন, যৌনসঙ্গমের জন্য ২০১৪ থেকে এখনও পর্যন্ত পৃথিবী থেকে মোট ২১২ জনকে অপহরণ করেছে এলিয়েনরা

এতটা জোর দিয়ে জেরোমে তাঁর তথ্য হাজির করেছেন, এমনি-এমনি নয়। পিটার ছাড়াও তাঁর আস্তিনে রয়েছে আরও প্রমাণ। এই যেমন এক মহিলা।

এলিয়েনের সঙ্গে তাঁর যৌনমিলন হয়েছে, এমনই দাবি তাঁর। ওই মহিলা জানান, ক্রুজে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। ফিরে এসে বুঝতে পারেন তিনি অন্তঃসত্ত্বা। কী ভাবে? তাঁর অনুমান নিশ্চয়ই অদ্ভুত কিছু ঘটেছে তাঁর সঙ্গে। আর তা ঘটিয়েছে কোনও এলিয়েনই।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!