রিক্সা চালক রুমানা জা’নিয়ে দিলেন যাকে বিয়ে ক’রতে চান তিনি!

রিক্সা চালক রুমানা জা’নিয়ে দিলেন যাকে বিয়ে ক’রতে চান তিনি!

বর্তমান এই আধুনিক যুগে সবার হাতেহাতে বিনোদন বলতে আমা’দের মাথায় একটাই আধুনিক প্ল্যাটফর্মের কথা মনে পড়ে সেটি হল সোশ্যাল মিডিয়া।হ্যা এই সোশ্যাল মিডিয়াই এখন আমা’দের বিনোদন খেলাধুলা, গানবাজনা,

সিনেমা, খবরাখবর প্রভৃতি আরও অনেক,কিছু উপভো’গ করার বিপুল ব্যাব’হৃত এবং সহজ মাধ্যম হয়ে উঠেছে। ছোটো থেকে বড়ো প্রায় সবার হাতেই এখন এই মাধ্যমটি পৌঁছে গেছে।

আধুনিক সমাজে’র বহু তরুণতরুণীর বহু প্রতিভা, খেলাধুলা এই মাধ্যমের মাধ্যমে সবার হাতেহাতে পৌঁছে গেছে এবং ফুটে উঠেছে।আধুনিক সমাজে প্রায় সবাই বিভিন্ন তথ্য, জ্ঞান, শিক্ষা, প্রযু’ক্তি গ্রহণ ক’রতে এই মাধ্যমের উপর বিপুল ভাবে সক্রিয় বলা যেতে পারে।

বর্তমানে আধুনিকতার শিখরে এসে সব থেকে দ্রুত সাফল্য পাবার চা’বিকাঠি হল এই সোশ্যাল মিডিয়া। প্রায় অনেকেই নিজে’র প্রতিভা,তুলে ধ’রে রাতারাতি এক সাফল্যের শিখরে পৌঁছে স্টার হয়েছেন,

হয়েছেন বহু মানুষের কাছে অনুপ্রেরণা।এই মাধ্যমে একজন মানুষের প্রতিভা খুব কম সময়ের মধ্যে সবার কাছে পৌঁছায়। আবার সেই প্রতিভা দেখিয়ে মানুষের মনোরঞ্জন করে টাকাও উপার্জন করা যায়।

পাশাপাশি এখানে বহু মানুষ তার প্রতিভা ভিত্তিক বহু পথে তার উপার্জনের মাধ্যম করে নিয়েছেন এবং বহু মানুষকে উপার্জনের পথ খুঁজতে সাহায্য ক’রেছেন।

সবদিক দিয়েই যেমন-ব্যবসা, চাকরি, পড়াশোনা, খেলাধুলা, নিজে’র প্রতিভা ফুটিয়ে তোলা ই’ত্যাদি ও আরও বহু কিছুতে সাফল্য পেতে এটির সাহায্য নেয় বহু মানুষজন। সব কিছু মিলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া এক বহু সাহায্যকারী মাধ্যম আমা’দের কাছে।

বহু মানুষের বিভিন্ন জীবন কা’হিনীর ভিডিও ভাইরাল হয় এই সোশ্যাল মিডিয়ায়।ইদানীং এক তরুণী ও তার খুবই ক’’ষ্টকর জীবন কা’হিনীর ভিডিও ভাইরাল হচ্ছে এই সোশ্যাল মিডিয়ায়।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে তরুণী এক রিকশা চালিকা।তরুণীর নাম রুমানা। তার মা মা’নসিক ভাবে অ’সু’স্থ। তার ভাইবোন আছে। তার বাবা তাকে, তার ভাইবোনদের এবং তার অ’সু’স্থ মাকে ছেড়ে চলে গেছেন।তিনি বাড়ির বড়ো মেয়ে হওয়ায় পরিবারের স’ম্পূর্ণ দায়িত্ব তার উপর।

তিনি তার এই ক’ঠিন সময়েও ভেঙ্গে পড়েননি।তিনি তার ভাইবোন এবং তার মা’নসিক অ’সু’স্থ মাকে দেখভাল করার জন্য এবং তার মায়ের চিকিৎ’সার জন্য তিনি রিকশা চালিয়ে টাকা উপার্জন করেন।

ভিডিওটিতে তার জীবন যু’’দ্ধের কা’হিনী শুনে সোশ্যাল মিডিয়ার দর্শকরা দুঃখিত তার জন্য। এই ভিডিওটি নিমিষে ভাইরাল হয় সোশ্যাল মিডিয়ায়।তিনি বহু তরুণীর অনুপ্রেরণা হয়ে দাঁড়িয়েছেন।

তিনি আমা’দের শিখিয়েছেন যে জীবনে যত খা’রাপ প’রিস্থিতিই আসুক কখনো হেরে যেতে নেই।ভিডিওটিতে তার মনবল দেখে সোশ্যাল মিডিয়ার দর্শকরা তার দিকে প্রশংসার ঝর তুলেছেন। আপনিও এই ভিডিওটি দে’খতে পারেন।

এই ভিডিওটি Bangla Much ইউটিউব চ্যানেলে এক বছর আগে আপলোড করা হয়েছে। এই ভিডিওটিকে পঁচিশ লাখেরও বেশি মানুষজন দেখেছেন।এই ভিডিওটিকে পঁচিশ হাজারেরও

বেশি মানুষজন লাইক ক’রেছেন এবং সাড়ে ছয় শতকেরও বেশি মানুষজন কমেন্ট করে তাদের মন্তব্য জানিয়েছেন। এই ভিডিওটিকে বহু মানুষজন শে’য়ার করে অন্যদের এই ভিডিওটি দেখার সুযোগ করে দিয়েছেন।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!