ডিভোর্সের আগের রাতের অভিজ্ঞতা জানালেন মালাইকা

ডিভোর্সের আগের রাতের অভিজ্ঞতা জানালেন মালাইকা

বিয়ে-সন্তান-বিবাহবিচ্ছেদ-লিভইন এইসব কিছুই যেন এখন জলভাত মালাইকা আরোরার কাছে। বলিউডের একসময়কার জনপ্রিয় জুটি মালাইকা-আরবাজ ১৮ বছর ধরে একসঙ্গে সংসার করলেও আজ তারা আলাদা।

বিয়ে ভাঙলেও ছেলের কারণেই বন্ধুত্বটা রয়েছে তাদের। বর্তমানে ছেলে আরহানকে নিয়েই থাকেন মালাইকা। দীর্ঘদিনের সম্পর্ক-সংসার ভেঙে ছেলেকে নিয়ে বেরিয়ে আসাটা অতটাও সহজ ছিল না অভিনেত্রীর।

নিজের বিবাহ-বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুললেন মালাইকা।কীভাবে সেই রাতের মোকাবিলা করেছিলেন অভিনেত্রী। তিক্ত অভিজ্ঞতা নিজেই শেয়ার করলেন বলি ফ্যাশনিস্তা। কী ঘটেছিল সেই রাতে মালাইকার সঙ্গে জানলে অবাক হবেন।

বলি অভিনেতা আরবাজ খানের সঙ্গে বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ে প্রথম দেখা, সেখান থেকে প্রেম, তারপর বিয়ে এবং বর্তমানে এক সন্তানের মা মালাইকা। যদিও সেই সম্পর্কেও চিড় ধরে বছর চারেক আগে। বলিউডের একসময়কার জনপ্রিয় জুটি মালাইকা-আরবাজ ১৮ বছর ধরে একসঙ্গে সংসার করলেও আজ তারা আলাদা।

বিয়ে ভাঙলেও ছেলের কারণেই বন্ধুত্বটা রয়েছে তাদের। বর্তমানে ছেলে আরহানকে নিয়েই থাকেন মালাইকা। কিন্তু ছেলে আরহানের সব দায়িত্ব একসঙ্গেই পালন করে থাকেন তারা।

করিনা কাপুরের রেডিও শোয়ে হাজির হয়েছিলেন মালাইকা। আর সেখানেই প্রথম বিবাহ-বিচ্ছেদ নিয়ে মুখ খুলেছিলেন।তার জীবনযাপন, আরবাজ খানের সঙ্গে বিবাহ-বিচ্ছেদ কোনটাই যেন মেনে নিতে পারেননি খান পরিবার।

পরিবারের সদস্যরা মালাইকা নিজের মতোন করে কাটানো জীবনটা সহ্য করতে পারতেন না। আর দীর্ঘদিনের এই টানাপোড়েনেই বিবাহ-বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নেন অভিনেত্রী।

আরবাজের সঙ্গে বিচ্ছেদের খবর প্রকাশ্যে আসা মাত্রই এই নিয়ে নানা গুজব প্রকাশ্যেও এসেছিল।বিচ্ছেদের আগের দিনটা পরিবারের সঙ্গে কীভাবে ফেস করেছিলেন মালাইকা তাও জানালেন নিজেই।

বিচ্ছেদের আগের রাতে পরিবারের সকলে এক জায়গায় বসে তাকে জিজ্ঞাসা করেছিল তিনি যা করছেন তা ঠিক করছেন তো। কিন্তু তিনি তার সিদ্ধান্তে অনড় ছিলেন। তাই হাজার অসুবিধার মধ্যে ছেলে আরহানকে নিয়ে তিনি আরবাজের সংসার ছাড়তে পেরেছিলেন।

যদি তার এই বিচ্ছেদে পূর্ণ সমর্থন ছিল ছেলে আরহানের। মাকে সবসময় হাসি মুখে দেখতে চান আরহান। আর মার মুখে যেন সবসময় হাসি থাকে। তাই মার সিদ্ধান্তে কোনও আপত্তিও ছিল না ছেলের।

বর্তমানে অর্জুন কাপুরের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করছেন মালাইক। কবে সাতপাকে বাঁধা এই খবরে টিনসেল টাউন সরগরম থাকলে তারা সেভাবে এখনও মুখ খোলেন নি।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!