স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়লেই গো’পন রাস্তা দিয়ে চ’লে যান স্বামী, অবশেষে জা’না গেল কারণ!

স্ত্রী ঘুমিয়ে পড়লেই গো’পন রাস্তা দিয়ে চ’লে যান স্বামী, অবশেষে জা’না গেল কারণ!

রাতে স্ত্রী ঘুমিয়ে প’ড়লেই স্বামী গো’পন রাস্তা দিয়ে পা’লিয়ে যেতো অন্য কো’থাও। কারন তার স্ত্রী ঘুমের মধ্যে এত জো’ড়ে জো’ড়ে নাক ডাকে

যে তার স্বামীর পক্ষে তার স’ঙ্গে রাত কা’টানো স’ম্ভব হয়না। আর কিভাবে পালিয়ে যায় সেই কথা শুনলে আপনি অ’বাক হবেন। একটি ওয়েবসাইটে একটি নিব’ন্ধ প্র’কাশিত হ’য়েছিলো এই খবর নিয়ে।

সেখানে বলা হ’য়েছিলো “পাটসি কে” নামের এক পুরুষ প্রতি রাতে তার স্ত্রীর ন’জর এড়ি’য়ে নিজে’র বাড়ি থেকে ৮০০ মিটার দূ’রে একটি ম’দের দোকানে পৌঁছে যেত।

আর তার মদের দোকানে যাওয়ার প’দ্ধতি ছিল একটু অন্য রকম। সে তার বেডরুমের খা’টের নিচে থেকে মদের দোকানের শৌ’চালয় পর্যন্ত গ’র্ত খুঁ’ড়েছিল।

প্রতি রাতেই স্ত্রী ঘু’মিয়ে পরার পর পা’লিয়ে যেত সে, আর সকালে তার স্ত্রী ঘুম থেকে উঠে পরার আগেই সে ফি’রে আ’সতো। সকালে যখন তার স্ত্রী ঘুম থেকে উঠ’তো তখন তার মুখে অ্যা’লকোহলের গ’ন্ধ পেত। কি’ন্তু সে কিছুতেই বুঝ’তে পা’রতোনা যে কিকরে তার মুখে গ’ন্ধ এলো।

দীর্ঘ পনের বছর পর পা’টসি ধ’রা পড়ে। ধ’রা পরার পরেও তার কোন অ’নুশোচনা ছিলনা। সে হাসি মুখে বলে তার স্ত্রীর নাক ডাকার শব্দ স’হ্য হয়না, তাই সে প্রতি রাতে পালিয়ে যেতো মদের দোকানে। সেখানে মদ খেয়ে আবার ফি’রে আসতো সেই পথ ধ’রেই।

এত বছর ধ’রে ম’দের দো’কানের মালিক নিজেও বু’ঝতোনা যে কোথা থেকে পাটসি আসে। ১৯৯৪ সালে স্টি’ফেন কিং এর লেখা গ’ল্পের ভি’ত্তিতে নি’র্মিত শশা’ঙ্ক রি’ডেম্পশন মুভি থেকে অ’নুপ্রা’ণিত হয়ে সে এই কাজ করেছে। সেখানে যেমন নায়ক জে’লখানা খুঁ’ড়ে বে’ড়িয়ে আসে তেমনই পা’টসি কিছু ক’রতে চেয়েছিল।

সুড়’ঙ্গ খুঁ’ড়তে ব্যবহার করেছিলো কাঁটা চামচ, ড্রিল মেশিন ও আরো অন্য অনেক জিনিস। তার স্ত্রী যখন শ’পিং ক’রতে বে’ড়িয়ে যেত তখন সে লু’কিয়ে লু’কিয়ে এই কাজ করতো। বহু বছরের এই প্রচে’ষ্টার পর সে ২০০৯ সালে স’ফল হয়।

তার ধ’রা পরার কথা ছিলোনা। কিন্তু স’ম্প্রতি ড্রে’নের ম’য়লা প’রিষ্কার ক’রতে সু’ড়’ঙ্গের ফা’টল ধ’রা পড়ে। তবে পা’টসির কোন দুঃ’খ নেই সেই নিয়ে। কারন সে জা’নত একদিন না একদিন সে ঠিক ধ’রা পড়ে যাবে।

Share

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

error: Content is protected !!